সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৬:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ধানমন্ডির বসিলায় ওয়েস্ট হাউজিংয়ে বিনা নোটিশে ১৭ টি পরিবারকে উচ্ছেদ জেল থেকে বেরিয়ে ফের শিশু পর্নোগ্রাফি চক্রে, শিশুসাহিত্যিক টিপু সঙ্গীসহ গ্রেফতার ১ম বিয়ে ১০০, ২য় ৫ হাজার, ৩য় ২০ হাজার, ৪র্থ বিয়ে করলে দিতে হবে ৫০ হাজার টাকা কর সিন্ডিকেট ও মজুতদারির বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান হজ নিবন্ধনের সময় বাড়ল ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তুরাগতীরে বৃহত্তম জুমার জামাত অনুষ্ঠিত ঢাকা জেলা প্রেস ক্লাব নির্বাচন শামীম সভাপতি ও ফারুক সাধারণ সম্পাদক পুলিশ হেফাজতে বডি বিল্ডার ফারুকের মৃত্যুর অভিযোগ আদালতে মামলা দায়ের, তদন্তে ডিবি টিআইয়ের দুর্নীতির ধারণাসূচকের প্রতিবেদন অস্পষ্ট: দুদক আড়াই বছরেও কূলকিনারা হয়নি ডা. সাবিরা হত্যাকান্ডের রহস্যের
নোটিশ :
Wellcome to our website...

পাকিস্তানের পেশোয়ারে বিস্ফোরণে ৩২ নিহত , আহত ১৫০ দুই চেকপোস্টে পুলিশকে ফাঁকি, মসজিদে সামনের সারিতে ছিল হামলাকারী

রিপোর্টার / ৬০ বার
আপডেট : সোমবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০২৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

পাকিস্তানের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ খাইবার পাখতুনখোয়ার পেশোয়ার শহরের পুলিশ লাইন্স এলাকায় মসজিদের ভেতরে শক্তিশালী বোমা বিস্ফোরণে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৩২ জন মানুষ নিহত হয়েছেন। সোমবার দুপুরে জোহরের নামাজ আদায়ের সময় এই বিস্ফোরণে আহত হয়েছেন আরও দেড় শতাধিক মানুষ।

দেশটির নিরাপত্তা কর্মকর্তারা স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জিও নিউজকে বলেছেন, মসজিদে জোহরের নামাজের সময় সামনের সারিতে উপস্থিত ছিলেন আত্মঘাতী হামলাকারী। সেখানে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে নিজেকে উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি।

দেশটির জ্যেষ্ঠ এই কর্মকর্তা বলেছেন, শহরের সব হাসপাতালে জরুরি পরিস্থিতি ঘোষণা করা হয়েছে। বিস্ফোরণে আহতদের সর্বোত্তম চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছে। বেশিরভাগ আহতদের পেশোয়ারের লেডি রিডিং হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে। তাদের রক্তদানে এগিয়ে আসতে সাধারণ মানুষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

খাইবার পাখতুনখোয়ার তত্ত্বাবধায়ক মুখ্যমন্ত্রী মুহাম্মদ আজম খান পেশোয়ারের সব হাসপাতালে চিকিৎসা জরুরি অবস্থা জারি করেছেন। অন্তর্বর্তীকালীন এই মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধারকারী সব সংস্থাকে ত্রাণ তৎপরতার গতি ত্বরান্বিত করার নির্দেশ দিয়েছেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে একজন প্রত্যক্ষদর্শী বলেছেন, বিস্ফোরণের সময় তিনি মসজিদে যাচ্ছিলেন। তিনি বলেন, এটা শক্তিশালী বিস্ফোরণ ছিল। বিস্ফোরণের পর সর্বত্র ধোঁয়া উড়ছিল।

এই প্রত্যক্ষদর্শী আরও বলেন, মসজিদের ভেতরে ২০০ জনের বেশি মানুষ নামাজ আদায় করছিলেন। এটা আত্মঘাতী বিস্ফোরণ। কারণ বোমা হামলাকারী মসজিদের ভেতরে ছিলেন। নামাজ শুরু হওয়া মাত্রই বিস্ফোরণটি ঘটেছে। আহতদের মধ্যে বেশিরভাগই পুলিশ সদস্য বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘বিস্ফোরণের কারণে সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলেন তিনি। পরে চেতনা ফেরার পর দেখেন, মসজিদের ছাদ ধসে গেছে।’

মসজিদটিতে নিয়মিত নামাজ আদায় করেন সিভিল সেক্রেটারিয়েট অ্যাসোসিয়েশন পেশোয়ারের সভাপতি তাসাভুর ইকবাল। তিনি বলেন, পুলিশ লাইন্স এলাকায় সবসময় সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়। পরিচয়পত্র এবং দেহ তল্লাশি ছাড়া কেউই এই মসজিদে প্রবেশ করতে পারেন না। পেশোয়ারের এই বাসিন্দা বলেন, আজকের এই ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক। এটা অনেক বড় মসজিদ। একসাথে ৪০০ থেকে ৫০০ মানুষ নামাজ পড়তে পারেন। বিস্ফোরণে মসজিদের একাংশ ধসে পড়েছে।

দেশটির সাংবাদিক কাইসার বিস্ফোরণের ঘটনা বিশ্লেষণ করে বলেন, পুলিশ লাইন্স এলাকাটি পেশোয়ারের ক্যান্টের অত্যন্ত স্পর্শকাতর এলাকায় অবস্থিত। এই এলাকায় ২৪ ঘণ্টাই আইনপ্রয়োগকারী বিভিন্ন সংস্থার ব্যাপকসংখ্যক সদস্য ও এফসি কর্মীরা উপস্থিত থাকেন।

তিনি বলেন, খাইবার পাখতুনখোয়ার কাউন্টার টেরোরিজম ডিপার্টমেন্ট (সিটিডি) ও পুলিশের তদন্ত বিভাগের কার্যালয় এখানে অবস্থিত। সাধারণত পুলিশের এই সদর দফতরে এক হাজার পুলিশ কর্মী উপস্থিত থাকেন।

পাকিস্তানি এই সাংবাদিক বলেন, ওই এলাকাটির ভেতরে যেতে হলে অন্তত দুটি পুলিশি তল্লাশিচৌকিতে থামতে হয়। অন্তত তিনবার তল্লাশি এড়িয়ে বোমা হামলাকারী ভেতরে ঢুকতে সক্ষম হয়েছেন।

তবে বোমাটি আগে থেকেই মসজিদে পেতে রাখা হয়েছিল নাকি এটি আত্মঘাতী হামলা— তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন দেশটির পুলিশ কর্মকর্তারা। বিস্ফোরণস্থলের আশপাশের সব সড়ক ইতোমধ্যে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া ইসলামাবাদেও আইনশৃঙ্খলাবাহিনীকে সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় থাকার নির্দেশ দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। #


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর