সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ধানমন্ডির বসিলায় ওয়েস্ট হাউজিংয়ে বিনা নোটিশে ১৭ টি পরিবারকে উচ্ছেদ জেল থেকে বেরিয়ে ফের শিশু পর্নোগ্রাফি চক্রে, শিশুসাহিত্যিক টিপু সঙ্গীসহ গ্রেফতার ১ম বিয়ে ১০০, ২য় ৫ হাজার, ৩য় ২০ হাজার, ৪র্থ বিয়ে করলে দিতে হবে ৫০ হাজার টাকা কর সিন্ডিকেট ও মজুতদারির বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান হজ নিবন্ধনের সময় বাড়ল ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তুরাগতীরে বৃহত্তম জুমার জামাত অনুষ্ঠিত ঢাকা জেলা প্রেস ক্লাব নির্বাচন শামীম সভাপতি ও ফারুক সাধারণ সম্পাদক পুলিশ হেফাজতে বডি বিল্ডার ফারুকের মৃত্যুর অভিযোগ আদালতে মামলা দায়ের, তদন্তে ডিবি টিআইয়ের দুর্নীতির ধারণাসূচকের প্রতিবেদন অস্পষ্ট: দুদক আড়াই বছরেও কূলকিনারা হয়নি ডা. সাবিরা হত্যাকান্ডের রহস্যের
নোটিশ :
Wellcome to our website...

ধ্বংসস্তুপের মাঝে এক টুকরো কাপড়ের খোঁজে ওরা

রিপোর্টার / ৫৫ বার
আপডেট : বুধবার, ৫ এপ্রিল, ২০২৩

বঙ্গবাজারে পুড়ে যাওয়া ধংসস্তুপের মধ্যে এক টুকরো কাপড়ের সন্ধানে নেমেছে শতশত ভাসমান মানুষ। যদি পোড়া কাপড়ের মধ্যে পাওয়া যায় এক টুকরা ভালো কাপড়। শুধু ভাসমানরাই তাদের আড়ালে অনেক মধ্যবিত্তকেও খুঁজতে দেখা গেছে এক টুকরো কাপড়। অথচ দুদিন আগেও ক্রেতা-বিক্রেতার হাঁক-ডাকে যে মার্কেট ছিল জমজমাট, আজ সেখানে হাহাকার। নতুন কাপড়ের গন্ধের বদলে সেখানে শুধুই পোড়া গন্ধ। এসবে মধ্যেই একটু-আকটু ভালো কাপড় খুঁজতে ভিড় জমিয়েছেন অনেকেই।
গতকাল বুধবার বঙ্গবাজারে সরেজমিনে পুড়ে যাওয়া দোকানে পুড়ে যাওয়া কাপড় চোপড়সহ মালামাল পুড়ে ছাইয়ের স্তুপ হয়ে পড়ে আছে। স্তুপের মধ্যে প্রায় সব কাপড়ই পড়ে গেছে। কিছু কাপড় আংশিক পুড়েছে। কিছু ফায়ার সার্ভিসের ছিটানো পানিতে নষ্ট হয়েছে। সেই স্তুপের মধ্যে থেকে ভালো কিছু কাপড় বের করতে বা খুঁজতে ছিন্নমূল ও নিম্ন আয়ের মানুষেরা। এছাড়াও আশপাশের এলাকার অনেকেই বেশ ভিড় জমিয়েছেন পুরো বঙ্গবাজার এলাকায়।
তাদের মধ্যে অনেকে দুই একটা শাড়ি, প্যান্ট ও শার্ট জাতীয় পোশাক পেয়েছেন। যার মধ্যে কিছু পোড়া, আবার কোনো কোনটা অল্প কিছু ভালো আছে। এমন লাখ লাখ পোড়া কাপড় মিলে পুরো বঙ্গবাজার পরিণত হয়েছে যেন স্তুপে। বঙ্গবাজার সংলগ্ন আনান্দবাজার বস্তি থেকে আসা আখলিমা বলেন, বস্তির প্রতিবেশীদের কাছে জান পারলাম পোড়া কাপড়ের মধ্যে কিছু ভালো কাপড় পাওয়া তাই ছুটে আসছি। দুই একটা পাইছি কিন্তু অর্ধেক অংশে পোড়া দাগ আছে। তিনি বলেন, তুবও অসুবিধা নেই। পোড়া অংশ কেটে অন্য কাপড় লাগিয়ে সেলাই করলেই পরা যাবে। অন্যের বাসায় কাজ করা আখলিমা বলেন, এ বছর সব কিছুতে যে পরিমান দাম, তাতে ছেলে-মেয়েদের নতুন কাপড় দিতে পারতাম না। এ বছর এই পোড়া কাপড়েই চালিয়ে দিবেন।
রিয়াজুল ইসলাম বলেন, অনেকেই পোড়া স্তুপের মধ্যে ভালো কাপড় খুজছে। আমিও তাই করছি, একটা ভালো কাপড় পাওয়ার আশায়। নতুন বাচ্চাদের জন্য নতুন কাপড় কেনার মত সামর্থ নেই। এখান থেকে যদি কিছু পাওয়া যায় ধুয়ে স্ত্রী করে যার গায়ে লাগে তাকে দিবো।
এ বিষয়ে বঙ্গ ইসলামিয়া মার্কেটের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কবির হোসেন বলেন, এগুলো মূলত বঙ্গ মার্কেটের পোড়া মালামাল। এখানে পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। সবকিছু পুড়ে গেছে। আশপাশের দরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষরা এসে এসবের মধ্যে বেছে দেখছে ব্যবহার করার মত ভালো কিছু পাওয়া যায় কি না। আমারা এসব পোড়া মালামাল সরিয়ে এক জায়গায় করে রাখছি, সিটি করপোরেশনের ময়লার গাড়ি এসে এগুলো নিয়ে যাবে।
উল্লেখ্য, মঙ্গলবার সকাল ৬টা ১০ মিনিটে বঙ্গবাজার মার্কেটে আগুন লাগে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৪৮টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করে। তাদের সহযোগিতায় সকাল থেকেই কাজ করেন সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনী ও বিজিবির সদস্যরা। আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত ছিলো পুলিশ, র‌্যাব ও আনসার সদস্যরা। প্রায় সাড়ে ৬ ঘণ্টা জ্বলে, কয়েক হাজার দোকান পুড়ে অবশেষে নিয়ন্ত্রণে আসে বঙ্গবাজার মার্কেটের আগুন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এক ক্লিকে বিভাগের খবর